মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ জুলাই ২০১৯

পূর্ণ-উদ্যোমে এগিয়ে চলেছে হজ্জ- ফ্লাইট কার্যক্রম


প্রকাশন তারিখ : 2019-07-11

৪ জুলাই ২০১৯ হতে আজ ১১ জুলাই ২০১৯ পর্যন্ত পূর্ণ-উদ্যোমে এগিয়ে চলেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের হজ্জ পরিচালনার কার্যক্রম।কোন ধরনের সংকট,জটিলতা ছাড়াই নির্বিঘ্নে সুষ্ঠভাবে চলছে  বিমানের হজ্জ অপারেশন্স-২০১৯। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স হজ্জ অপারেশন-২০১৯ এর কার্যক্রমের আওতায় ১১ জুলাই ২০১৯ সকাল ০৮.০০ পর্যন্ত ৩৭টি ডেডিকেটেড এবং ০৭টি শিডিউল ফ্লাইট পরিচালিত করেছে। বিমান এপর্যন্ত ৪৪ টি ফ্লাইটের মাধ্যমে মোট ১৬,২০৬ জন হজ্জ-যাত্রী পরিবহন করেছে।

 

চলতি হজ্জ মৌসুমের সকল সম্মানিত হজ্জ যাত্রীদের আবারও যাত্রার ০৮(আট) ঘন্টা পূর্বে অবশ্যই আশকোনা হজ্জ ক্যাম্পে অবস্থান করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে। উল্লেখ্য, বিমান ওয়েবসাইট, মতিঝিল বিমান সেলস অফিস ও আশকোনা হজ্জক্যাম্পে ইতোমধ্যে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। হজ্জ যাত্রীগণ ওয়ানওয়েতে ১০০ ডলার এবং রিটার্ন যাত্রা (যাওয়া আসা) ২০০ ডলার বা সমপরিমাণ টাকার বিনিময়ে উড়োজাহাজের সামনের অপেক্ষাকৃত বড় ও আরামদায়ক আসনে যাতায়াত করতে পারবেন।

 

প্রথমবারের মত এবছর কিছু ফ্লাইটের জেদ্দা বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন কার্যক্রম ঢাকা থেকেই সম্পন্ন্ করা হচ্ছে। এ উদ্দেশ্যে সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন টিম ঢাকায় অবস্থান করছে।। এবছর ধর্ম মন্ত্রণালয় ‘রোড টু মক্কা’-এর আওতায় বিমানের ১২২ টি ফ্লাইটের ইমিগ্রেশন ঢাকায় সম্পন্ন করার অনুমতি দিয়েছে। ভবিষ্যতে ইনশাআল্লাহ্ সকল ফ্লাইটের ইমিগ্রেশন ঢাকায় সম্পন্ন হবে। প্রথমদিন অর্থাৎ ০৪ জুলাই ২০১৯, সার্ভার জটিলতার কারণে ইমিগ্রেশনের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়েছিল তবে পরের দিন ০৫ জুলাই ২০১৯ তারিখ হতে সৌদি ইমিগ্রেশন কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে হচ্ছে।

 

‘রোড টু মক্কা’ অর্থাৎ হজ্জ যাত্রীদের ইমিগ্রেশন ঢাকায় সম্পন্ন হওয়া সরকারের একটি মহতী উদ্যোগ ও পদক্ষেপ । সরকারের এই মহান উদ্যোগের মাধ্যমে ধর্মপ্রাণ মুসুল্লীগণের জেদ্দা বিমানবন্দরে দীর্ঘ প্রতীক্ষা এবং ভোগান্তির অবসান ঘটবে।

 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স একটি সর্বাঙ্গ-সুন্দর হজ্জ কার্যক্রম পরিচালনায় দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। ২০১৯ সালের হজ্জ কার্যক্রম সফল করে তুলতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স দেশবাসীর আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছে।


Share with :

Facebook Facebook