মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২১st জানুয়ারি ২০২০

বিমানের অর্জনসমূহ

 

সেপ্টেম্বর ২০১৯ হতে বিমানের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম
 

  1. নির্ধারিত সময়ে ফ্লাইট যাত্রা: বিমানের উড়োজাহাজগুলোর OTP (On Time Performance) অভাবনীয়ভাবে উন্নীত হয়েছে। বর্তমানে এর ওটিপি-র শতকরা হার প্রায় ৮০% যা বৈশ্বিক বেসামরিক বিমান পরিবহণ শিল্পের হারের সমান। এখন টেকনিক্যাল ও আবহাওয়াজনিত কারণ ছাড়া বিমানের প্রায় সকল ফ্লাইট ই নির্ধারিত সময়ে উড্ডয়ন এবং অবতরণ করছে।
  2. টিকিট ব্যবস্থাপনা: বর্তমানে ইকোনমি ক্লাসের টিকিট বিনামূল্যে বিজনেস ক্লাসে উন্নীতকরণের পদ্ধতিটি বন্ধ করা হয়েছে, ফলশ্রুতিতে বিজনেস ক্লাস এর টিকেট বিক্রি বৃদ্ধি পেয়েছে। টিকিট বিক্রয় ও সংরক্ষণের ক্ষেত্রে অটোমেশন পদ্ধিত প্রবর্তণ করা হয়েছে। সম্মানিত যাত্রীগণ এখন মোবাইল এপস্-এর মাধ্যমেও অনলাইনে ঘরে বসে টিকিট ক্রয় করতে পারছেন।  
  3. ব্যাগেজ ডেলিভারি: সুনিপুণ পদ্ধতি ও তদারকির কারণে ব্যাগেজ ডেলিভারি পদ্ধতির উন্নতি হয়েছে। উড়োজাহাজ নামার দুই হতে আড়াই ঘন্টার মধ্যেই ব্যাগেজ ডেলিভারি নিশ্চিত করা হচ্ছে।
  4. যাত্রীসেবার মান উন্নয়ন করা হয়েছে।
  5. প্রকৌশলগত রক্ষণাবেক্ষণ: বিমানের প্রয়োজনীয় প্রকৌশলগত রক্ষণাবেক্ষণের ক্ষেত্রেও মান উন্নয়ন ও ব্যয় সংকোচন নিশ্চিত করা হয়েছে। এজন্য  উড়োজাহাজ মেরামত রক্ষণাবেক্ষণ এবং খুচরা যন্ত্রাংশ ক্রয়ের ক্ষেত্রে original manufacturer-এর মাধ্যমে সেবা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
  6. প্রাতিষ্ঠানিক শৃংখলা: বিমানের অভ্যন্তরীণ প্রাতিষ্ঠানিক শৃংখলা উন্নয়নে নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়ন করা হয়েছে:

ক. ওভারটাইম ব্যবস্থাপনা সহজিকরণ এবং ন্যয়ানুগ করা;

খ. এয়ারসাইডে পুরাতন যানবাহন প্রতিস্থাপন করে ৩টি নতুন সেডান কার, ৪টি মাইক্রোবাস চলমান;

গ. বিমানবন্দরের অভ্যন্তরে গাড়ি ফুয়েলিং-এর জন্য ডিজেল ও অক্টেনের দুইটি ব্রাউজার স্থাপন;

ঘ. প্রায় ১০ বছর পর ২৪টি ক্যাটাগরির পদে সর্বমোট ১০৬জনকে পদন্নোতি প্রদান করা;

ঙ. প্রায় ১০ বছর পর বিভিন্ন ক্যাটাগরির পদে নিয়োগের কার্যক্রম শুরু করা। ইতোমধ্যেই নতুন করে ৮০জন কেবিন ক্রু রিক্রুট করা হয়েছে।  

 

 


Share with :

Facebook Facebook